online income-অনলাইন থেকে টাকা আয়ের ৫ টি সহজ উপায় (online taka income)

 

online income -অনলাইন থেকে টাকা আয়ের ৫ টি  সহজ উপায় (online taka income)

online earning



online বা  internet থেকে টাকা আয় করার জন্য, আমাদের হাতে অনেক গুলো উপায় রয়েছে। যা আমাদের  প্রায় সবারি কম বেশি এই সকল বিষয়ে ধারণা আছে আবার কারো কারো ধারণা নাই বললেই চলে। আমি নিজেই আমার মাসিক ইনকামের একটি অংশ  online বা  internet থেকে পেয়ে থাকি। 


তাই, online থেকে টাকা আয়ের আপনার জন্যও অনেক রাস্তা / পথ খোলা রয়েছে। শুধু প্রয়োজন, আপনার মধ্যে প্রবল ইচ্ছা, কিছু সাধারণ কৌশল এবং (skills) দক্ষতা ।(how to earn money from internet in bangla). 


৩টি উপায়ে গুগোল থেকে আয় করুন


আমরা যদি অনলাইন থেকে টাকা উপার্জনের উপায় খুজি তাহলে আমাদের কিছু বিষয়ে ধারণা রাখা খুব জরুরি। কারণ  অনলাইন থেকে  taka income করা অনেক মাধ্যম আছে এটা যেমন ১০০% সত্য। ঠিক তেমনি মিথ্যা (False) বা জালি (fake) মাধ্যমও রয়েছে। এইসব মিথ্যার ফাদে বেশিভাগ ছাত্ররা (students) পরে । যারা online জগতে নতুন আসে, এইসব বিষয়ে ধারণা কম। 

এই সব মিথ্যার ফাদে পরে কেবল মাত্র সময় নস্ট হয়। এবং টাকা দেওয়ার নামে প্রতারণা শিকার হয়।

তাই, বর্তমান internet থেকে taka income উপায় গুলোর মধ্যে সবগুলো কিন্তু আসল (real) জেনুইন (genuine) নয়।

তবে,ইন্টারনেটে টাকা উর্পাজনের যেসব নিশ্চিত  বা জেনুইন উপায় রয়েছে, সেগুলো যদি আপনি পূর্ণ ধারণা নিয়ে  সঠিক ভাবে ব্যবহার করতে পারেব তাহলে বিশ্বাস করুন, আপনি কিছু দিনের মধ্যে এত টাকা  income করতে পারবেন যা আপনি অন্য কোন কাজ করার প্রয়োজন হবে না।

এই আর্টিকেলটির মাধ্যের আমি আপনাদের সাথে  internet থেকে taka income এমন ৫টি  উপায় সর্ম্পকে শেয়ার করবো, যেগুলো সঠিক ব্যবহার করলে আপনি কিছু দিনের মধ্যেই ভালো পরিমাণের টাকা আয় করতে পারবেন।

online taka  income  এর এই মাধ্যম গুলো যে কেউ চাইলে এই উপায় গুলো অনুসরন করে কাজ শুরু করতে পারবেন।

যেমন, স্কুল বা কলেজে পড়ার ছাত্ররা(students), retired মানুষেরা বা  houswife বা আপনি বা আমি  part time বা full time online income উদ্দেশ্যে এই উপায় গুলো ব্যবহার করে কাজ শুরু করতে পারি।

আপনার বা আমাদের আশে পাশে এমন অনেক মানুষ আছে যারা চাকরি পাশাপাশি  online earning নিজের income কে দীগুণ বারিয়ে নিচ্ছে। আমাদের প্রযুক্তি নির্ভর বিশ্ব সামনে দিকে যতদিন এগোচ্ছে ততটাই "online থেকে taka income" করার নতুন নতুন সুযোগ বের হচ্ছে।


internet  থেকে টাকা আয় কেন করবেন?



দেশের জনসংখ্যা দিন দিন বেড়ে যাওয়ার ফলে যে কোন চাকরির ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতাও অনেক বেশি পরিমাণের বেড়ে গেছে। এ অবস্থায় নিজের মনের মত একটা ভালো চাকরি পাওয়ার  অনেক বড় সমস্যা হয়ে দাড়িয়েছে।

তাই এই সব বিষয় নিয়ে মন খারাপ করে বাসায় বসে না থেকে, ইন্টারনেট ব্যবহার করে online income এর মাধ্যম ব্যবহার করে বাসায় বসে বসে কাজ শুরু করে দেওয়াটা সব থেকে বুদ্ধিমানের কাজ বলে আমি মনে করি।

আর এই মুহূতে আপনি যদি কোন চাকরি করে থাকেন তাও কোন সমস্যা নেই আমার মত আপনিও online এর কিছু সময় ব্যয় করে "part time online earning" এর মাধ্যমে আপনি এক্সট্রা ইনকাম করে নিতে পারবেন।

এই online জগতে আপনি যদি সঠিক পথ অনুসরণ করেন কাজ শুরু করে দিতে পারেন তাহলে-এখানে ইনকামের কোন সীমা থাকবে না।

লোকেরা, ঘরে বসে বিভিন্ন মাধ্যম ব্যবহার করে মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করে নিচ্ছে।

তাছাড়া,আপনি যদিও মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করতে নাও পারেন তবুও আপনি প্রতি মাসে চলার মত টাকা আয় করে নিতে পারবেন।

বর্তমান ইন্টারনেটে এমন ভালো ভালো কিছু মাধ্যম রয়েছে যেমন, bloging, youtubing,affiliate marketing ইত্যাদি আরো অনেক মাধ্যম রয়েছে,যেগুলো ব্যবহার করে দেশ বিদেশের বিভিন্ন লোকেরা মাসে ভালো পরিমাণের টাকা আয় করে নিচ্ছেন।

এবং যে কেউ চাইলে,bloging, youtubing,affiliate marketing এই সব মাধ্যম দ্বারা অনলাইনে ইনকাম করতে পারবেন।

এই ৩টি মাধ্যমকে যেকোন দেশে সব থেকে বেশি ব্যবহার করা হয় online earning ক্ষেত্রে।

 google এ র্সাচ করে দেখে নিতে পারেন, অনলাইন আয়ের এই সব মাধ্যম গুলো ব্যবহার করে বিশ্বের আজ অনেক মানুষ সফল।

শেষে এটাই বলবো যে, দিনে দিনে যেভাবে অনলাইন ইনকামের সুযোগ অধিক বেশি বেড়ে গেছে। এবং যদি আপনার মধ্যে বিশেষ কিছু দক্ষতা থাকে, তাহলে অবশ্যই অনলাইন থেকে ইনকাম করার সুযোগ আপনার  কাছেও থাকবে।

এই সুযোগটাই কাজে লাগান।

জায়গায় জায়গায় চাকরি খুজেঁ সময় নষ্ট না করে হতাস হওয়ার থেকে বা অফিসের বস থেকে গালি, অসন্তুষ্টি কর কথা শুনার থেকে। আপনি ঘরে বসে নিজে নিজে কাজ করে স্বাধীন ভাবে কাজ করে টাকা আয় করুন । যেমতা আমি করি।

 এখন আপনাদের মনে একটি প্রশ্ন জাগতে পারে।


কি কি লাগবে online থেকে টাকা আয় করা জন্য?



অনলাইনে কাজ করার জন্য কি কি লাগবে সেতা নির্ভর করে  আপনি অনলাইনে  কোন ধরনের কাজ করবেন সেতা উপর।

কিন্তু আমাদের সম্পূর্ণ কাজ যেহেতু অনলাইনে হবে সেক্ষেত্রে আমাদের লাগবে ইন্টারনেট কান্টেকশন এবং একটি কম্পিউটার (desktop / laptop) ।

এই দুটি জিনিস আপনার সাথে থাকলে আপনি ঘরে বসে বা আপনার সুবিধা মত যে কোন জায়গায় বসে কাজ শুরু করে দিতে পারবেন। 

কিন্তু, এক্ষেত্রে....

লেপটপ হলে ভালো হয় কারণ এটির মাধ্যমে আপনি  যেখানে যান সেখানে নিয়ে যেতে পারবেন । সময় পেলে বসে বসে কাজ করতে পারবেন।

যদি আপনি আপনার মোবাইল ব্যবহার করে কাজ করার কথা ভাবছেন , তাহলে আমি বলবো এভাবে অনলাইনে কাজ করা সম্ভব না । কারণ আপনি যদি অলাইন থেকে লাইফটাইম ইনকামের কথা ভাবেন তাহলে আপনাকে প্রফেশনাল ভাবে কাজ করতে হবে।

এইজন্য আপনার একটি কম্পিউটার (desktop / laptop) থাকা জরুরি।


অনলাইন থেকে টাকা আয়ের যে ৫ টি  উপায় (online taka income)


আপনি অনলাইন আয়ের আমার দেওয়ার এই ৫টি আয়ের উপায় জানার পর। আরো  আইডিয়ার পাওয়ার জন্য google বা youtube সার্চ করে আরো  ভালোমত জেনে নিতে পারবেন.....



১. blogging করে আয়..


blogging করে আয়..

blogging নিয়ে যদি বিস্তারিত বর্ণনা করতে যায় তাহলে লিখে শেষ করতে পারবো না।  কিন্তু আমি যতটুকু সম্ভব আপনাদের এ বিষয়ে ধারনা দেওয়া চেষ্টা করবো।

প্রথমে blogging করার জন্য আপনার একটা wabsite বানাতে হবে। wabsite বানানোর কথা শুনে ভয়ের কিছু নেই, কিভাবে wabsite বানাবে এই সব বিষয়ে google আর্টিকেল পরে বা  youtube এই সব বিষয়ে অনেক  ভিডিও পেয়ে যাবেন। একটু সময় দিলে খুব সহজে আপনি  wabsite বানিয়ে ফেলতে পারবেন।


আপনার  যে বিষয়ে লেখালিখি করতে ভালোলাগে সে বিষয়ে লেখা শুরু করতে পারেন। আপনার লেখা গুলো পড়ার জন্য যখন আপনার wabsite ভিজিটর আসা শুরু করবে, google  তখন আপনার wabsite  ads(বিজ্ঞাপন) দিবে। ওই ads এর ক্লিক পরলে ওখান থেকে আপনার earning শুরু হবে।

আরো সহজ করে যদি উদাহারণ দিতে যায়, 

আমরা অনেক সময় বিভিন্ন বিষয় জানার জন্য google গিয়ে র্সাচ করে থাকি এবং google আমাদেরকে সামনে  অনেক গুলো  wabsite প্রর্দশন করে। আমরা যখন ঐ site গুলোতো ধুকে যায়, একটু খেয়াল করলে দেখবেন আমরা যেতা পড়ছি এর আসে পাশে উপরে নিচে বা লেখা মাঝখানে ads(বিজ্ঞাপন) আমাদের সামনে দেখানো হয়। যিনি ঐ wabsite এর মালিক তিনি তার wabsite মাধ্যমে আমাদেরকে ads(বিজ্ঞাপন) দেখিয়ে মাসে ভালো পরিমাণের একটা   income earning করে নিচ্ছে।

google adsense ছাড়াও affiliate marketing করেও আপনার wabsite থেকে income করে নিতে পারবেন।

আজ, বিভিন্ন দেশের লোকেরা তাদের ক্যারিয়ার হিসাবে ব্লগিং তাকে ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নিয়েছে । 

এই কাজটি আপনি part time বা full time হিসেবে নিতে পারেন।


যদি আপনি  প্রতিদিন 2 থেকে 4 ঘন্টা ব্লগিংয়ের সময় দিতে পারেন তবে আপনি সহজেই মাসে 10 থেকে 20 হাজার টাকা উপার্জন করে নিতে পারবেন।

বর্তমানে আমিও চাকরির পাশা পাশি part time হিসেবে প্রতিদিন প্রায় 2 থেকে 3 ঘন্টা সময় নিয়ে ব্লগ করছি। এবং এখান থেকে ভালো একটা ইনকাম প্রতি মাসে উর্পাজন করে নিছি।



২.YouTube channel এর মাধ্যমে


YouTube channel এর মাধ্যমে

ভিডিও তৈরি করতে যদি  আপনার ভালোলাগে বা ভিডিও তৈরি করার যদি আপনার passion হয়ে থাকে তাহলে youtube কে ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নিয়ে আপনির নিজেকে একটি সুন্দর জীনব উপহার দিতে পারবেন।

আপনি আপনার কৌশল বা দক্ষতা কে কাজে লাগিয়ে  একটি ইউটিউব চ্যানেল মাধ্যমে  অর্থ উপার্জন করতে পারে।

ব্লগিংয়ের পরে, ইউটিউব ঘরে বসে অনলাইনে আয় করার দ্বিতীয় সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং লাভজনক উপায়।

আপনি যে বিষয়ে ভালো পারেন, ঐ বিষয়ের উপর ভিডিও তৈরি করতে পারেন। আপনার ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও গুলি আপলোড করতে পারেন।

উদাহরণস্বরূপ, টিউটোরিয়াল ভিডিও, শিক্ষামূলক ভিডিও, গল্প, তথ্যমূলক এবং অন্যান্য বিষয় যা লোকেরা আপনার  ভিডিও দেখে উপভোগ করে আপনি ঐ বিষয়গুলি নিয়ে ভিডিও তৈরি এবং আপলোড করতে পারেন।


ইউটিউব থেকে অর্থ উপার্জনের জন্য মূলত 3 টি উপায় রয়েছে।



  • গুগল অ্যাডসেন্সের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে।
  • অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে পণ্যগুলি প্রচার করে।
  • স্পনসরশিপ দ্বারা।


উপরের  এই সব মাধ্যমে ধরণের নিজের বানানো ভিডিও ব্যবহার করে আজ হাজার হাজার মানুষ প্রতি মাসে  কয়েক মিলিয়ন টাকা কামিয়ে নিচ্ছে।


 ৩. affiliate marketing করে আয়


affiliate marketing করে আয়

affiliate marketing  "জনপ্রিয়" online earining মাধ্যম গুলো মধ্যে একটি।

affiliate marketing হল এমন একটি marketing প্রক্রিয়া যা মাধ্যমে আপনি অন্য কোন সংস্থার বা কোম্পানি কোন পণ্য online প্রচার বা প্রচারণার মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করা। 

আপনি আপনার ওয়েবসাইট,ব্লগ, ইউটিউব চ্যানেল বা সোশ্যাল মাডিয়া page / group এর মাধ্যমে আপনার পণ্য বা প্রোডাক্ট এর সার্ভিস গুলো অনলাইন প্রমোশন (promotion) বা প্রচার করতে পারেন।

এবং, যদি কেউ আপনার প্রচারিত "affiliate link"এর মাধ্যমে অনলাইনে কোন পণ্য বা প্রোডাক্ট ক্রয় করে, তাহলে আপনাকে ঐ কোম্পানি পণ্য sell হওয়ার একটি অংশ আপনাকে কমিশন হিসেবে দেওয়া হবে।

"affiliate link" অথাৎ "URL link adress" আপনা যে কোম্পানির প্রোডাক্ট প্রচার করবেন, আপনাকে ঐ কোম্পানি পক্ষ থেকে URL link টি দেওয়া হবে।

এবং, ঐ link আপনি প্রচার করতে পারবেন। আর কোম্পানির প্রোডাক্টটির ঐ link টি মাধ্যমে লোকেরা সরাসরি  অনলাইনের পণ্যটি কিনতে পারবে। 

amazon,flipkart,snapdeal মতো অনেক গুলো ই-কর্মাস ওয়েবসাাইট রয়েছে, যার পণ্যগুলো আপনি affiliate marketing প্রোগ্রাম মাধ্যমে প্রচার করতে পারেন। 

ই- কর্মাস ওয়েবসাইট ছাড়াও ইন্টারনেটে বিভিন্ন ধরণের সংস্থা রয়েছে। উদাহারণস্বরুপ, ডোমেন এবং হোস্টিং ওয়েবসাইটের থিমস, প্লাগিংনস, বুক এবং ৯০% ইন্টারনেটে সংস্থাগুলো affiliate প্রোগ্রাম ব্যবহার করে থাকে।

অতএব,আপনি আপনার ব্লগ,ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যানেলের বিষয় বিত্তিক বা বিষয় সর্ম্পকিত ঐ সকল affiliate প্রোগ্রাম খুঁজে পেতে পারেন এবং তারপরে ভিডিও বা আর্টিকেলের মাধ্যমে প্রচার করতে পারেন ।


৪. facebook videos মাধ্যমে আয়

facebook videos মাধ্যমে আয়



বর্তমান facebook "ad breaks" নামে একটি নতুন ফাংশন চালু হয়েছেঅ এই "ad breaks"  মাধ্যমে facebook page আপলোড হওয়া ভিডিওগুলোতে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে অর্থ উর্পাজন করতে পারবেন।

আপনি অনেক সময খেয়াল করে দেখছেন, যে আপনার মোবাইলে facebool news feed scroll  করতে করতে আপনার মোবাইলে স্ক্রিনের বিভিও চলে আসে আর ঐ সকল ভিডিও মাঝখানে বিজ্ঞাপন চলে আসে। এটাই হল  facebook "ad breaks" কাজ।  


facebook এ ফাংশনটি কয়েকদিন আগে প্রকাশিত হয়েছিল। সুতরাং আপনি এই আশা রাখতে পারেন, যদি বুদ্ধি খাতিয়ে কাজে লেগে থাকতে পারেন তবে এখান থেকে একটা ভাল পরিমাণের অর্থ উপার্জন করে নেওয়া সম্ভব।




৫. পিটিসি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আয়



পিটিসি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আয়

আজ অনেকেই online বিজ্ঞাপনগুলিতে click করে বা পিটিসি ওয়েবসাইট মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দেখে বা অনলাইন ওয়েবসাইট click করার মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করছে।

পিটিসি ওয়েবসাইটগুলি আপনাকে বিভিন্ন ধরণের কাজ দিয়ে থাকে। উদাহরণস্বরূপ, কিছু "পেইড সার্ভে" কাজ করার পরিবর্তে বিজ্ঞাপন দেখা, অন্যান্য বিভিন্ন অফার এবং কাজ করার পরিবর্তে এই পিটিসি ওয়েবসাইটগুলি আমাদের অনলাইনে উপার্জনের সুযোগ দেয়।

সাধারণভাবে, পিটিসি সাইট থেকে অর্থ উপার্জনের সহজ উপায় হ'ল বিজ্ঞাপনগুলি দেখানো এবং "পেইড সার্ভে" সম্পূর্ণ করা।

তবে, সব ধরণের পিটিসি সাইটগুলিতে বিশ্বাস করা যায় না।
অনেক পিটিসি সাইট fake হয়ে থাকে ।




তবে, "YSENSE.COM" এবং "NEOBUX.COM" পিটিসি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিভিন্ন জায়গা থেকে অনেকের নিজে চলার মত একটা অর্থ আয় করে নিচ্ছে।


এই সব সাইট গুলোতো আপনি যত বেশি সময় দিতে পারবেন , আপনার আয় ততবেশি হবে।



আপনি এ সকল পিটিসি সাইট সর্ম্পকে আরো ধারণা নিতে google সাহায্য নিতে পারেন।






























  

Post a Comment

Post a Comment (0)

Previous Post Next Post

Recent Posts

Facebook